আজ সোমবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন logo

মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৫, ০৪:৫২ পূর্বাহ্ন

পাঁচ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা শুরু

নিউজ ডেস্ক

জনতার নিউজ২৪ ডটকম

ঢাকাঃ ‘একটি ব্যাংকিং জাতি গড়ার প্রত্যয়ে’ স্লোগন নিয়ে আজ মঙ্গলবার শুরু হয়েছে পাঁচ দিনব্যাপী ব্যাংকিং মেলা। বাংলা একাডেমিতে সকাল ১০টায় মেলার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ড. আতিউর রহমান।

মেলা চলবে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত। মেলায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ছাড়াও দেশি-বিদেশি ৫৬টি ব্যাংক, ছয়টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও সাতটি আর্থিকসেবা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে।
 
গত সোমবার দুপুরে বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে সংবাদ সম্মেলন করেন ব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ ও মেলা আয়োজক কমিটির সমন্বয়ক বীরুপাক্ষ পাল।
 
মেলায় বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক শিক্ষা, টাকা জাদুঘর, বাংলাদেশ সিকিউরিটি প্রিন্টিং প্রেস (টাকা তৈরির মেশিন), বিভিন্ন প্রকাশনা, স্মারক মুদ্রা ও নোট ক্রয়, জনসাধারণকে সেবা, সিআইপিসি এবং অভিযোগ কেন্দ্র থাকছে।
 
প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা একটা পর্যন্ত আর্থিক শিক্ষা কর্মসূচির আওতায় স্কুলগামী শিক্ষার্থীদের নিয়ে দু’দিন, কর্মজীবি শিশুদের নিয়ে একদিন, উম্মুক্ত উপস্থিতিদের নিয়ে একদিন আর্থিক শিক্ষা বিষয়ক কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। দুপুর দুইটা থেকে বেলা চারটা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বির্তক প্রতিযোগিতার আয়োজন থাকছে। প্রতিযোগিতার বিষয় থাকবে, ব্যাংকিং খাতে উচ্চ সুদের প্রধান কারণ, মুদ্রার বিনিময় হার, পুঁজির অবাধ প্রবাহ, বৈদেশিক বিনিয়োগ, মূল্যস্ফীতির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ, কর্মের সময়সীমা ও মুনাফা। বিকাল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত আর্থিক খাতের বিশেষজ্ঞদের অংশগ্রহণে আর্থিক উন্নয়ন, শিক্ষা, মূল্যস্ফীতি, প্রবৃদ্ধি, অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাংকের ভূমিকা, গ্রহণযোগ্য সুদহার নির্ধারণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে কৃষি, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে ঋণ প্রবাহের ভূমিকা, মুদ্রানীতির কার্যকরিতা ও প্রযুক্তি নির্ভর ব্যাংকিং সেবা বিষয়ে সেমিনার, গোলটেবিল ও ওয়ার্কশপ। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বিনোদনের মাধ্যমে আর্থিক শিক্ষা কর্মসূচি পরিচালনা করতে পরিবেশন করা হবে ব্যাংকিং পণ্য ও  সেবা সর্ম্পকে লোকজ গান এবং নাটিকা।
 
বীরুপাক্ষ পাল বলেন, ব্যাংকিং সেবা সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা, ব্যাংকিং খাতের পণ্য ও সেবা সম্পর্কে প্রচার করা, গ্রাহকের কাছে সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান হিসেবে তুলে ধরা এবং তরুণ ও যুব সমাজকে ব্যাংকমুখী করাই মেলার লক্ষ্য।