আজ বুধবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৭, ০৬:০৩ অপরাহ্ন logo

মঙ্গলবার, ২৩ মে ২০১৭, ১২:৪৪ অপরাহ্ন

শুল্ক ও গোয়েন্দা অধিদপ্তরে ‘হোটেল রেইনট্রি’ মালিক হাজির

নিউজডেস্ক

 

জনতার নিউজ২৪ ডটকম :

রাজধানীর বনানীর রেইনট্রি হোটেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এইচ এম আদনান হারুনসহ পাঁচজন মঙ্গলবার সকালে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কাকরাইলের কার্যালয়ে হাজির হয়েছেন।

 

ইত্তেফাককে খবরটি নিশ্চিত করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। জানা গেছে, হাজির হওয়া রেইনট্রি হোটেলের পক্ষে রয়েছেন রেইনট্রির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আদনান হারুন, তার চাচা মুজিবুল হক কামাল, ফুফা আকবর হোসেন মঞ্জু, ফুফাতো ভাই হাসিব করিম ও অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির শুল্ক গোয়েন্দাদের কাছে হাজিরা দেন।

 
মঙ্গলবার রাজধানীর কাকরাইলে ইডিইবি ভবনে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের প্রধান কার্যালয়ে তারা উপস্থিত হন। বেলা সাড়ে ১১টায়ও তাদের সেখানে জিজ্ঞাসাবাদ চলছিল।
 
রেইনট্রি হোটেলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনার পর সেখানে তল্লাশি চালান শুল্ক গোয়েন্দারা। সেখান থেকে ১০ বোতল বিদেশি মদ জব্দ করা হয়। 
 
এই বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত ১৫ মে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতর রেইনট্রি হোটেলের এমডি এইচ এম আদনান হারুনকে হাজির হওয়ার নোটিশ দেয়। ১৭ মে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে তিনি হাজির হননি। ওই দিন আইনজীবীর মাধ্যমে আদনান এক মাস সময়ের আবেদন করেন। পরে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ তাদের সাতদিনের সময় মঞ্জুর করেন। 
 
তবে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন এমডি এইচ এম আদনান হারুন। গতকাল সোমবার রেইনট্রি হোটেল কর্তৃপক্ষকে শুল্ক গোয়েন্দা  অধিদফতরের দেওয়া সেই নোটিশের কার্যক্রম স্থগিত করেন হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ।
 

একইসঙ্গে ওই নোটিশের কার্যক্রম কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে গতকাল বিকেলে চেম্বার বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার হাইকোর্টের আদেশের ওপর ৬ সপ্তাহের স্থগিতাদেশ দেন।