আজ বুধবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৭, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন logo

শনিবার, ০৩ Jun ২০১৭, ১২:১২ অপরাহ্ন

স্ত্রীকে হত্যার পরই স্বামীর আত্মহত্যা

নিউজডেস্ক

 

জনতার নিউজ২৪ ডটকম :

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ঘুমন্ত স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার একদিন পরই মনিরুল ইসলাম নামে এক স্বামী বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন।

শুক্রবার রাতে স্ত্রীর কবরের পাশে তিনি বিষপান করেন। পরে হাসপাতালে আনার পর তার মৃত্যু হয়।

এদিকে মৃত্যুর আগে মনিরুল স্ত্রীকে হত্যার দায় স্বীকার করে কলারোয়া হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. শফিকুল ইসলামের কাছে স্বেচ্ছায়  জবানবন্দি দিয়েছেন।

তিনি বলেন ‘ স্ত্রীকে হত্যা করে আমি অপরাধ করেছি। আমি শোকার্ত, ব্যথিত। তাই আত্মহত্যার জন্য বিষপান করেছি’।

মনিরুলের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলে জানান কলারোয়া থানার ওসি বিপ্লব কুমার নাথ।

ওসি জানান, দুই বছর আগে কলারোয়ার দেয়াড়া গ্রামের ইমান আলির মেয়ে তাহমিনার ( ১৯) সঙ্গে বিয়ে হয় যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার রাজবাড়ি গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে মনিরুলের। বিয়ের পর থেকে প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হতো।

ওসি জানান, সম্প্রতি তাহমিনা তার পিত্রালয়ে চলে যায়। অপরদিকে সব কিছু মিটমাট করে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মনিরুলও তার শ্বশুর বাড়ি দেয়াড়ায় আসে।

গত বুধবার রাতে খাওয়া-দাওয়া সেরে একই ঘরে তারা ঘুমাতে যান। রাতের কোনো এক সময়ে মনিরুল তার স্ত্রী তাহমিনার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর পালিয়ে যায়।

ওসি বিপ্লব কুমার নাথ আরও জানান, এ ঘটনার পর পলাতক স্বামী তার স্ত্রীর কবরের পাশে গিয়ে শুক্রবার রাতে বিষপান করেন।

গভীর রাতে গোঙানির শব্দ পেয়ে লোকজন তাকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে পুলিশ মনিরুলকে এনে কলারোয়া হাসপাতালে ভর্তি করে। রাতেই তার মৃত্যু হয়।

মনিরুল তার স্ত্রীকে হত্যা করে যে অপরাধ করেছে তার জন্য অনুতপ্ত ছিল। এ কারণে তিনি বিষপান করে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন বলে পুলিশ ও ডাক্তারের সামনে দেয়া জবানবন্দিতে উল্লেখ করেছেন বলে জানান ওসি।