আজ সোমবার, ২৬ Jun ২০১৭, ০৯:২৮ অপরাহ্ন logo

বুধবার, ২৪ মে ২০১৭, ০৩:০৩ অপরাহ্ন

এক গৃহহীনের ‘হিরো’ হওয়ার গল্প

নিউজডেস্ক

 

জনতার নিউজ২৪ ডটকম :

যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত ‘ম্যানচেস্টার অ্যারিনা’। এখানে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড যেমন আছে, আছে অনেক গৃহহীন মানুষও। আর এই গৃহহীন মানুষদের একজন স্টিফেন জোন্স। গত সোমবার এখানকার একটি কনসার্ট হলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ২২ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় তাঁর জীবনের মোড় ঘুরে গেছে। গৃহহীন থেকে তিনি হয়ে গেছেন ‘হিরো’—সে গল্প শোনাচ্ছে সিএনএন।

কনসার্টটি ছিল তরুণ প্রজন্মের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় মার্কিন গায়িকা আরিয়ানা গ্রান্ডির। তাঁর গান শুনতে আসা দর্শকদের বড় অংশই ছিল কিশোর-কিশোরী আর তরুণ-তরুণী। হতাহতদের মধ্যেও তাই তাদের সংখ্যাই বেশি।

যেখানে কনসার্ট হচ্ছিল, তার কাছাকাছি এলাকাতেই ছিলেন গৃহহীন স্টিফেন জোন্স। তাঁর ভাষায়, ‘প্রথমে প্রচণ্ড জোরে শব্দ শুনলাম। ভাবলাম, আতশবাজির শব্দ হয়তো। সঙ্গে সঙ্গে বড় বিস্ফোরণ ঘটল। সবাই ভয়ে দৌড়াতে শুরু করল। আমি ও আমার এক সঙ্গীও দৌড়াতে শুরু করলাম। দৌড়াতে দৌড়াতে বুঝতে পারলাম ঘটনা কী ঘটেছে। আমরা দৌড়ে আবার আগের জায়গায় চলে গেলাম। দেখলাম, সবাই রক্তাক্ত অবস্থায় বের হয়ে আসছে।’

স্টিফেন জোন্স ওই সময় নিজের অনুভূতি সম্পর্কে বলেন, ‘আমরা সবাই মানুষ। আমাদের এখনো হৃদয় আছে। তাদের ওই মুহূর্তে সহযোগিতা দরকার ভীষণভাবে। যখন দেখলাম শিশুদের রক্তাক্ত শরীর, হতাহতের শরীর থেকে ছিটকে পড়া রক্ত-মাংসের দলা শরীরে নিয়ে আতঙ্কে ছুটে বের হওয়া শিশুর দল; তখন আর চুপ থাকতে পারলাম না। আমি যদি তাদের সাহায্যে এগিয়ে না যাই, আমি কোনো দিন নিজেকে ক্ষমতা করতে পারব না।’ এমন ভাবনার পর তিনি ঝাঁপিয়ে পড়েন কাজে।

গৃহহীন স্টিফেন জোন্সের এমন কাজের প্রশংসা করছে সবাই। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে আলোচনা। শুধু তা-ই নয়, গৃহহীনদের সমস্যার সমাধানে তহবিল গঠনের উদ্যোগ নিয়েছেন কেউ কেউ। ম্যানচেস্টারের নবনির্বাচিত মেয়র অ্যান্ডি বার্নহামও এতে সাড়া দিয়েছেন। ঘোষণা দিয়েছেন, তাঁর বেতনের ১৫ শতাংশ তিনি গৃহহীনদের কল্যাণে গঠিত তহবিলে দান করবেন।