আজ মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ০১:২৮ অপরাহ্ন logo

মঙ্গলবার, ০৬ Jun ২০১৭, ০১:০২ অপরাহ্ন

নেটওয়ার্ক পেতে মই বেয়ে গাছে উঠলেন মন্ত্রী

নিউজডেস্ক

 

জনতার নিউজ২৪ ডটকম :

তথ্যপ্রযুক্তিতে বহুদূর এগিয়েছে ভারত। কিন্তু দেশটির বহু এলাকা এখনও আধুনিক প্রযুক্তির সুবিধাবঞ্চিত। এমনই একটি এলাকা সফরে গিয়ে অভিনব অভিজ্ঞতা হয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থ ও কর্পোরেট বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়ালের।

 

প্রত্যন্ত এক গ্রামে সফরকালে মোবাইলের নেটওয়ার্ক পেতে তাকে মই বেয়ে গাছে উঠতে হয়েছে!

রোববার অর্জুন রাজস্থানে তার নির্বাচনী এলাকার অন্তর্গত প্রত্যন্ত ধোলিয়া গ্রামে সফরে যান। সফরকালে তিনি গ্রামবাসীর সঙ্গে তাদের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে গ্রামবাসীও তাদের অভিযোগ জানান। বলেন, স্থানীয় হাসপাতালে নার্সের সংখ্যা কম। এ কারণে তাদের স্বাস্থ্যসেবা পেতে বেশ অসুবিধার মুখোমুখি হতে হয়।

এ অভিযোগ পেয়ে তিনি পাশের শহরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে ফোন দেন। এতেই বাধে বিপত্তি। বারবার চেষ্টা করার পরেও নেটওয়ার্ক পেতে ব্যর্থ হন তিনি। গ্রামবাসীর সামনে বিব্রত হতে হয়। সমাধানে এগিয়ে আসেন গ্রামের মানুষই।

তারা প্রতিমন্ত্রীকে গাছে উঠে কথা বলার পরামর্শ দেন। এ বুদ্ধি পছন্দ হয় অর্জুনের। সঙ্গে সঙ্গেই জোগাড় করা হয় মই। তা বেয়ে সটান গাছে উঠে যান ৬২ বছর বয়সী এ রাজনীতিক। দেখা মেলে নেটওয়ার্কের।

প্রয়োজনীয় কথা সেরে নিরাপদেই নেমে আসেন তিনি। এ সময় সরকারি কর্মকর্তারা নিচে দাঁড়িয়ে মই ধরে ভারসাম্য রক্ষায় সহায়তা করেন। গ্রামবাসী জানান, নিকটস্থ শহর থেকে ৮৫ কিলোমিটার দূরের এ গ্রামটিতে মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক পাওয়া বেশ দুষ্কর। মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক পেতে অহরহ তাদের গাছে উঠতে হয়!

এ ঘটনার ছবি ভাইরাল হলে আলোচনা-সমালোচনা ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই এ ঘটনাকে মোদির ডিজিটাল ভারত গড়ার স্বপ্নের বাস্তব অবস্থা বলে সামাজিক মাধ্যমে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপে মেতে ওঠেন। তবে গাছে উঠেই ক্ষান্ত হননি প্রতিমন্ত্রী অর্জুন মেঘওয়াল। সমস্যা সমাধানে তাৎক্ষণিকভাবে ১৩ লাখ রুপি বরাদ্দ করেন। এ অর্থের বিনিময়ে আগামী ৩ মাসের মধ্যে গ্রামটিতে মোবাইল টাওয়ার ও বিদ্যুৎ সংযোগ স্থাপনের নির্দেশ দেন তিনি।