আজ শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৮:৪৯ অপরাহ্ন logo

বৃহস্পতিবার, ২০ Jul ২০১৭, ০৪:৩১ অপরাহ্ন

সিঙ্গাপুরে ধর্ষণের দায়ে বাংলাদেশির কারাদণ্ড

নিউজডেস্ক

জনতার নিউজ২৪ ডটকম :প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে দেখা করতে সিঙ্গাপুরে আসা এক চীনা নারীকে ধর্ষণের দায়ে এক বাংলাদেশিকে ১১ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে সিঙ্গাপুরের আদালত।

আনোয়ার হোসেন নামের ৩২ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি যুবক সিঙ্গাপুরে একটি নির্মাণ প্রকল্পে সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করতেন।

একজন পর্যটকের ওপর হামলার সাজা হিসেবে সিঙ্গাপুরের হাই কোর্ট তাকে ৯ বার বেত্রাঘাতেরও আদেশ দিয়েছে বলে স্ট্রেইটস টাইমসের খবর।

৪৪ বছর বয়সী ওই চীনা নারী তার প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে দেখা করতে গতবছর ফেব্রুয়ারি মাসে সিঙ্গাপুরের গেইলাংয়ে আসেন। যে বাড়িতে তার স্বামী থাকতেন, তার পাশের ঘরেই ভাড়া থাকতেন আনোয়ার।

মামলার বরাত দিয়ে স্ট্রেইটস টাইমস লিখেছে, ২০১৬ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি আনোয়ার একটি টুথব্রাশ হাতে নিয়ে তার ওই প্রতিবেশীর দড়জায় নক করে। ওই নারীর স্বামী তখন বাসায় ছিলেন না।  

দড়জা খুলে ওই নারী টুথপেস্ট দিতে চাইলেও আনোয়ার দড়জা আটকে দুই দফা তাকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ করা হয় মামলায়।

ওই রাতেই গ্রেফতার হওয়ার পর আনোয়ার মামলার বিচারের সময় প্রাথমিকভাবে দাবি করেন, তিনি ওই নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করার জন্য টাকা দিয়েছেন। কিন্তু পরে জেরার মুখে তিনি ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করে নেন।     

স্ট্রেইটস টাইমস লিখেছে, ধর্ষণের শিকার ওই নারী এখনও আতঙ্ক কাটিয়ে উঠতে পারেননি। সবসময় নিরাপত্তাহীনতার অনুভূতির কারণে চীনে নিজের বাড়িতে ফিরে তিনি সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়েছেন। স্বামীর সঙ্গে তার সম্পর্কেও শীতলতা তৈরি হয়েছে।      

চ্যানেল নিউজ এশিয়ার খবরে বলা হয়, আদালতের ডেপুটি পাবলিক প্রসিকিউটর কবিতা উথরাপাথি আসামির ১২ বছরের কারাদণ্ডের আবেদন করেছিলেন।

অন্যদিকে আনোয়ারের আইনজীবী প্রদীপ পিল্লাই শুনানিতে বলেন, তার মক্কেল নয় বছর ধরে সিঙ্গাপুরে আছেন এবং অতীতে এ ধরনের অপরাধ করেননি। যেহেতু তিনি দোষ স্বীকার করেছেন, সেহেতু তার দশ বছরের বেশি সাজা হওয়া উচিৎ নয়।

সিঙ্গাপুরের আইনে এ ধরনের অপরাধে ২০ বছর পর্যন্ত সাজার বিধান থাকলেও বিচারক শুনানি শেষে ১১ বছরের কারাদণ্ড ও বেত্রাঘাতের রায় দেন।