আজ শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭, ০৮:০৯ অপরাহ্ন logo

বুধবার, ০২ অগাস্ট ২০১৭, ০৪:৫৮ অপরাহ্ন

যে ক্ষুব্ধ হয়ে মামলা করেছে তাকে জিজ্ঞেস করেন : নারায়ণ চন্দ্র চন্দ

 

জনতার নিউজ২৪ ডটকম : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেছেন, ‘আমি ডুমুরিয়ায় ছাগল ও হাঁস মুরগি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলাম। টোকেন হিসেবে একটি ছাগল বিতরণও করেছি। তবে যে ছাগলটি বিতরণ করেছি, সেই ছাগলটি মরে নাই।’

তিনি আরও বলেন,‘আর এই ছাগল নিয়ে দেওয়া স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে একজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়ে আমার কোনও সম্পর্ক নাই। যিনি মামলা করেছেন তিনিও একজন সাংবাদিক।’

গত ২৯ জুলাই খুলনার ডুমুরিয়ায় এফসিডিআই প্রকল্পের আওতায় প্রাণিসম্পদ অধিদফতর কিছু পরিবারের মধ্যে হাঁস, মুরগি ও ছাগল বিতরণ করে। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ। এরপর দৈনিক প্রবাহের ডুমুরিয়া প্রতিনিধি  আ. লতিফ মোড়ল ‘প্রতিমন্ত্রীর সকালে বিতরণ করা ছাগল রাতে মৃত্যু’ শিরোনামে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায়  ডুমুরিয়া থানায় ৩১ জুলাই মামলা করেন খুলনার স্পন্দন পত্রিকার ডুমুরিয়া প্রতিনিধি সুব্রত কুমার ফৌজদার। মঙ্গলবার (১ আগস্ট) এই মামলায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। তবে আজ (বুধবার) তিনি জামিন পেয়েছেন। মন্ত্রীসহ এই তিন জনের বাড়িই ডুমুরিয়ায়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন,‘ আমি স্ট্যাটাসটি দেখিনি। খবরটিও দেখিনি। তাই আমার মানহানি হয়েছে কী হয় নাই, তা বলতে পারবো না। যে ক্ষুব্ধ হয়ে মামলা করেছে তাকে জিজ্ঞেস করেন।’

বাদী আপনার সঙ্গে কথা বলার পর মামলা করেছেন, বাদীর এই দাবির জবাবে তিনি বলেন,‘ আমার সঙ্গে কথা বলে তিনি মামলা করেননি। আমার সঙ্গে এনিয়ে তার কোনও কথা হওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।’

তিনি বলেন, ‘প্রাণিসম্পদ অধিদফতর কিছু পরিবারের মধ্যে হাঁস, মুরগি ও ছাগল বিতরণ করে। ওই অনুষ্ঠানে আমি প্রধান অতিথি ছিলাম। আমি টোকেন হিসেবে একটি ছাগল দিয়ে চলে যাই। পরে শুনেছি বিতরণ করা ছাগলের মধ্যে একটি ছাগল মারা গেছে। তবে আমি যে ছাগলটি দিয়েছি, সেটা মারা যায়নি।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান,‘ পরে আমি ডুমুরিয়া থানার ওসির কাছ থেকে জেনেছি, ওই অনুষ্ঠানের কোনও ছবি না দিয়ে আমার একটি পাসপোর্ট সাইজের ছবি দিয়ে ছাগল মরার নিউজটি দেওয়া হয়েছে। নিউজ করলেতো অনুষ্ঠানের ছবি দিয়ে নিউজ করবে। ইন্টেনশনালি হেয় করার জন্য এটা করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন,‘ যারা সাংবাদিক তাদেরও মানুষকে একটু মর্যাদা দিতে হবে। পরস্পরের মধ্যে আস্থা ও শ্রদ্ধা থাকতে হবে। আমরা আপনাদের থেকে ভিন্ন নই। আপনারা বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখেন, সমালোচনা করবেন তবেই না আমরা পারফেক্ট হবো।’