শহীদ আল্লামা শাহ আহমদ শফি ( র:) ইন্তেকাল পর হেফাজত ইসলাম প্রসঙ্গ:

শহীদ আল্লামা শাহ আহমদ শফি ( র:) ইন্তেকাল পর হেফাজত ইসলাম প্রসঙ্গ:

আচ্ছা ইসলামের আসল শিক্ষা আমরা কি এখনো পাইনি?যারা ইসলাম কে আন্দোলনের মাধ্যমে সব কিছুর সমাধান দিতে চান তাদের কে বলছি, আচ্ছা আপনার ইসলাম প্রচারটা  যদি এমন হতো, যেমন,ভারতের প্রধানমন্ত্রী সাথে যদি সবাই দেখা করে (আপনি ইচ্ছে করলে কিছু অন্য ধর্মের লোক সাথে নিতে পারতেন যারা আপনাদের ভালোবাসে, এভাবে কৌশলী হতে পারতেন) বাংলাদেশের তূলনামূলক সব ধর্মের সূন্দর সহ অবস্থান তূলে ধরতেন  এবং ভারতের মুসলমানের ব্যাপারে আপনাদের দাবী তুলে ধরতেন তাহলে সারা বিশ্বে সেটা কিভাবে প্রচার হতো আর এখন কিভাবে প্রচার হচ্ছে,ইসলাম প্রচার এ আমাদের মহানবী (সা:) এর নীতি থেকে আপনি দূরে সরে গিয়ে অন্য ধর্মের কাঊকে ইসলামে কখনো আনতে পারবেননা,আপনি হুদাইবিয়ার সন্ধির কথা ভুলে গেছেন, আপনি তো আমার প্রিয় নবী( সা:) পবিত্র বিদায় হজের ভাসন ভালোভাবে বুঝেনন,

আপনাদের কথা শুনে মনে হয় আপনারা বাংলাদেশের একটি অংশ শাসন করেন, অন্য অংশের সাথে জিহাদে সাধারণ মানুষ কে মাঠে নামান,সাধারণ সরল মানুষ গুলো শহীদ হয়েছেন আর আপনি? আপনি তো আর মারা যাননি!!!আপনি এরকম গরম গরম কথা বলে মিছিলের সামনে তো আপনি ছিলেননা,আপনি যদি ভুল ডিসিশন দেন আপনি মহান আল্লাহর কাছে কি বলবেন? শেষ বিচারে আপনার কি হবে ভাবছেন একবারও??নাকি আপনি ও শহীদির সসম্মান পাবেন একবার ও চিন্তা করে দেখছেন? সাধারণ পরিবার এর লোকজনের মারা যাওয়া বা আহত হওয়ার কারণ এ তাদের পরিবার ভবিষ্যৎ একবার ও চিন্তা করছেন?

করবেননা,কারণ আপনাদের কিছুই হয়নি, কারণ আপনার গরম ওয়াজ এর মুল্য আছে এখনো লাখ টাকা!!মানুষ এখন বলতেছেন ভারতের  প্রধানমন্ত্রী জন্য প্রতিবাদ করেন কিন্তু চীনের বা শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী জন্য না কেন??আসলে আপনাদের ঊদ্দেশ্য কি ইসলাম প্রচার নাকি রাজনীতি?এসবের জন্য বলতে হয় বর্তমান হেফাজত ইসলাম কে  অবশ্যই শহীদ আল্লামা শাহ আহমদ ( র:) এর অরাজনৈতিক ও আধ্যাত্মিক প্লাটফরম এ ফিরে আসতে হবে, না হয় অনেক মূল্য দিতে হবে।

Uncategorized