সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহার চান তাপস

সোর্স: নিজস্ব প্রতিবেদক

সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলা প্রত্যাহারের অনুরোধ জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

সাকরাইন ঘুড়ি উৎসব-১৪২৭ উপলক্ষে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) নগর ভবনের মেয়র হানিফ অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, দেশের মানুষ বিষয়টাকে হাস্যকর হিসেবে নিচ্ছে। এর আগেই আমি বলেছি। একটি দায়িত্বশীল পদে থাকলে অনেকেই অনেক কথা বলে। সব বক্তব্যের জবাব দেওয়া সমীচীন মনে করি না। গতকাল যে মামলা করা হয়েছে, তার সঙ্গে আমি জড়িত নই। অতি উৎসাহী কিছু লোক এ মামলা করেছেন। আমি তাদের মামলা প্রত্যাহারের জন্য বলবো। আমি আশা করবো, তারা দ্রুত মামলা প্রত্যাহার করবেন।

সাবেক মেয়র সাহেব ব্যক্তিগত আক্রোশের বশবর্তী হয়ে আমাকে উদ্দেশ্যে করে যে বক্তব্য দিয়েছেন৷ তা নিয়ে আমরা পর্যালচনা করেছি, ভবিষ্যতে মামলা হবে কি না তা ভেবে দেখবো।

তিনি আরও বলেন, সোমবার পর্যন্ত আমি যা লক্ষ্য করলাম বিষয়টা হাস্যরসে পরিণত হয়েছে। কেউ যদি ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে মনে করেন আমি এসব করছি, সেটা আসলে অনাকাঙ্ক্ষিত। ঢাকাবাসী এবং জাতি এ বিষয়গুলোতে আর গুরুত্ব দিচ্ছে না। এ বিষয়ে আজকে আমি আপনাদের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছি। আজকের পর এ বিষয়ে আমি আর কোনো বক্তব্য দেবো না।

ডিএসসিসি মেয়র বলেন, আপনারা জেনে আনন্দিত হবেন যে, গত ছয় মাসে এ করোনা মহামারিতে আমরা ৩৪৪ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করেছি। আমাদের লক্ষ্য পূরণে অনেক কাজ বাকি রয়েছে। আমাদের কাজে এবং কৌশলে ভুল হলে দেখিয়ে দেবেন। কিন্তু এইসব অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় নিয়ে কথা বলার মতো সময় আমাদের নেই।

মধুমতি ব্যাংকে সিটি করপোরেশনের টাকা হস্তান্তর বিষয়ে মেয়র বলেন, তিনি মধুমতি ব্যাংকে সিটি করপোরেশনের টাকা হস্তান্তরের কথা বলেছেন বিষয়টি অত্যন্ত বিভ্রান্তিকর। আমি দায়িত্ব নেওয়ার আগ থেকেই মধুমতি ব্যাংকের সঙ্গে সিটি করপোরেশনের সেবামূলক লেনদেন ছিল। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আমানত মধুমতি ব্যাংকে ছিল, এখনও আছে। অন্য ব্যাংকের সঙ্গে ও সিটি করপোরেশনের যেমন লেনদেন রয়েছে, মধুমতি ব্যাংকের সঙ্গেও লেনদেন রয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এবং সরকারের নিয়ম মেনেই মধুমতি ব্যাংকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের টাকা রাখা হয়েছে। এখানে আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি।

এসময় সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-৪ আসনের এমপি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলাসহ সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা ও কাউন্সিলররা।

সর্বশেষ